26 C
Bangladesh
Monday, November 29, 2021
Google search engine

সর্বশেষ পোস্ট

সিরাজগঞ্জে হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদের অবস্থান ও গনঅনশন ও বিক্ষোভ

ছাম্মি আহমেদ আজমীর: কেন্দ্রীয় কর্মসূচীর অংশ হিসেবে বাংলাদেশ হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদ সিরাজগঞ্জ জেলা শাখার উদ্যোগে গণঅনশন-গণঅবস্থান ও বিক্ষোভ মিছিল।

শনিবার (২৩ অক্টোবর) শহরের বাজার ষ্টেশন চত্বর পৌর মুক্ত মঞ্চে বাংলাদেশ হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদ সিরাজগঞ্জ জেলা শাখার উদ্যোগে,উক্ত সংগঠনের সিরাজগঞ্জ জেলা শাখার সভাপতি এড.সুকুমার চন্দ্র দাস এর সভাপতিত্বে, কেন্দ্রীয় কর্মসূচীর অংশ হিসেবে গণঅনশন-গণঅবস্থান সিরাজগঞ্জ শহরের বাজার স্টেশনস্থ স্বাধীনতা স্কয়ার চত্ত্বর মুক্তমঞ্চে অনুষ্ঠিত হয়।

গণঅনশন-গণঅবস্থান  শেষে স্বাধীনতা স্কয়ার চত্ত্বর মুক্তমঞ্চ হতে একটি বিক্ষোভ মিছিল নিয়ে শহরের প্রধান প্রধান সড়র প্রদক্ষিন করে শ্রী শ্রী মহাপ্রভূর আখড়া মন্দিরের সামনে এসে শেষ হয়।গণঅনশন-গণঅবস্থান ও বিক্ষোভ মিছিলে অন্যান্যদের মধ্যে বাংলাদেশ হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদ সিরাজগঞ্জ জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক নরেশ চন্দ্র ভৌমিক,যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক প্রদীপ রায়, উল্লাপাড়া উপজেলা শাখার সভাপতি প্রভাত কুমার নন্দী,

তাড়াশ উপজেলা শাখার সভাপতি আশোনাল স্যানাল,এনায়েতপুর থানা শাখার সভাপতি সুকুমার পাল, বাংলাদেশ পূজা উদযাপন পরিষদ কেন্দ্রীয় কমিটির উপদেষ্টা ও জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি এড. বিমল কুমার দাস,বাংলাদেশ পূজা উদযাপন পরিষদ সিরাজগঞ্জ জেলা শাখার সভাপতি সন্তোষ কুমার কানু, সাধারন সম্পাদক সঞ্জয় সাহা,

সিরাজগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি ও সিরাজগঞ্জ চেম্বার অব কমার্স এর সভাপতি আবু ইউসুফ সূর্য,জেলা আওয়ামিলীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারন সম্পাদক আবদুস সামাদ তালুকদার, সিরাজগঞ্জ জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক সাইদুর রহমান বাচ্চু, বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টি সিরাজগঞ্জ জেলা শাখার সভাপতি মোঃ ইসমাইল হোসেন,জেলা বাসদের আহবায়ক নব কুমার কর্মকার,গণঅনশন-গণঅবস্থানে বক্তাগন বলেন,একটি স্বাধীন দেশে ধর্মের পরিচয়ে নাগরিকত্ব পরিচয় হয়না। দেশ স্বাধীনের পূর্ব হতে যেভাবে সাম্প্রদায়িক হামলা,নির্যাতন করা হতো ঠিক সেভাবেই দেশ স্বাধীনের পরেও হিন্দুদের উপর নির্যাতন নিপিড়ন করা হচ্ছে।

এসব নির্যাতনের কোন বিচার হচ্ছে না। স্বাধীনতা যুদ্ধে সনাতন ধর্মাবলম্বীরাও সম-অংশীদার। সকল ধর্মের লোকই এই রাষ্ট্রের নাগরিক। নাগরিক হিসেবে জান মালের নিরাপত্তা দেওয়া সরকারের দায়িত্ব। দেশ উন্নয়নে বাধা সৃষ্টির মুল ভুমিকা হলো সাম্প্রদায়িক হামলা। কিছু কুচক্রী মহল এই পন্থায় দেশে নাশকতা সৃষ্টির অপচেষ্টা করছে। সাম্প্রদায়িক সহিংসতাকারীদের বিরুদ্ধে সরকারের জিরো টলারেন্স ঘোষনার দ্রুত বাস্তবায়ন করে কঠোর হস্তে এই কুচক্রী মহলকে চিহ্নিত করে দোষী ব্যক্তিদের আটক করে দ্রুত বিচারকার্য সম্পাদন করার আহবান জানান।

আলোচনা সভা ও গণঅনশন অবস্থান শেষে বিক্ষোভ মিছিলটি শহর প্রদক্ষিণ করে মুজিব সড়ক কেন্দ্রীয় মহাপ্রভু আখরায় এসে শেষ হয়। অনুষ্ঠান টি সঞ্চালনা করনে হিন্দু বৌদ্ধ খৃিষ্টান ঐক্য পরিষদের সাংগঠনিক সম্পাদক দিলীপ গৌর।

লেটেস্ট পোষ্ট

ফেয়ার & লেডি

spot_img

অবশ্যই পড়ুন

Stay in touch

To be updated with all the latest news, offers and special announcements.