28 C
Bangladesh
Sunday, October 17, 2021
Google search engine

সর্বশেষ পোস্ট

ভোটার তালিকায় ১১ বছর আগেই মৃত সোনাতলা পৌরসভায় কাউন্সিলর প্রার্থী

আল মামুন, সোনাতলা (বগুড়া):প্রতিনিধি:
বগুড়ার সোনাতলা পৌরসভা নির্বাচনে কাউন্সিলর প্রার্থী হওয়ার জন্য আগে থেকেই প্রস্তুতি ও গণসংযোগ কওে আসছেন ৫নং ওয়ার্ডেও কাউন্সিলর প্রার্থী আব্দুল কাশেম সেখ। জাতীয় পরিচয়পত্র ও আছে তার। কিন্ত নির্বাচনের সকল প্রস্তুতি যেন নিমিষেই শেষ হয়ে যায় তার। তিনি উপজেলা নির্বাচন অফিসে মনোনয়ন ফরম কিনতে গিয়ে জানতে পারলেন ভোটার তালিকায় তিনি ১১ বছর আগেই মৃত! এঘটানায় নানাআলোচনা-সমালোচনারসৃষ্টিহলেও কোনও সমাধান মেলেনি।
জানাগেছে, আগামী ২ নভেম্বর বগুড়ার সোনাতলা পৌরসভা নির্বাচন। গত ৪ অক্টোবর মনোনয়ন ফরম বিক্রি শুরু করেন উপজেলা নির্বাচন অফিস। সেখানে ফরম কিনতে যান ৫ নংওয়ার্ডেও কাউন্সিলর প্রার্থী ও চমর গাছা গ্রামের মৃতআব্দুল কুদ্দুসের ছেলে অবসরপ্রাপ্ত সেনাবাহিনীর সদস্য আব্দুল কাশেম শেখ। কিন্তু নির্বাচন কমিশনের ডাটাবেজে তার নাম খুজে পাওয়া যাচ্ছি লোনা।পরে তার নাম খুজে পাওয়া গেল মৃতে্যুও তালিকায়। ওই তালিকায় সে ২০১১ সালে মৃত দেখানো হয়েছে। এজন্য ওই কাউন্সিলর প্রার্থী এবারের মতো নির্বাচনে অংশ নিতে পারবেননা বলে জানিয়েছে উপজেলা র্ন্বিাচন অফিস।
উপজেলানির্বাচনঅফিস থেকে জানা গেছে, আব্দুল কাশেম সেখের এনআইডি নাম্বার দিয়ে কম্পিউটাওে সার্চ দিলে নো ডাটা ফাউন্ড লেখা ওঠে। তবে মৃত্যু তালিকায় রয়েছে তার নাম। নির্বাচনঅফিসের তথ্যানু যায়ী ২০১১ সালে কোন এক কারনে তার এই মৃত্যুও ঘটনা ভূলকরে ঘটেছে।
কাউন্সিলর প্রার্থী আব্দুল কাশেম সেখ বলেন, বেঁেচ থাকতেই আমাকে মৃত্যু বানিয়েছে নির্বাচনঅফিস। একারনে ইচ্ছা থাকাসত্তেও নির্বাচনে অংশ নিতে পাচ্ছি না।এখন কত দিনে জীবিত হতে পারবো সেটা নিয়েই চিন্তিত তিনি।
সোনাতলা উপজেলা নির্বাচন অফিসার মোঃআশরাফ হোসেন বলেন, যেকোন ভূলের কারনেই এই ঘটনা ঘটেছে। সংসোধনের আবেদন করলে এটির সমাধা নহবে।তবে এবারের মতো তিনি ভোট করতেপারবেন না। কারন দ্রুত সময়ের মধ্যে বর্তমান হালনাগাদ তালিকায় তার নাম ঢুকানো আর সম্ভব নয়।

লেটেস্ট পোষ্ট

ফেয়ার & লেডি

spot_img

অবশ্যই পড়ুন

Stay in touch

To be updated with all the latest news, offers and special announcements.